Home / এক্সক্লুসিভ / শিখে নিন ব্রণ ও বলিরেখা দূর করে কলার খোসার অসাধারন ব্যবহার!

শিখে নিন ব্রণ ও বলিরেখা দূর করে কলার খোসার অসাধারন ব্যবহার!

কলার খোসায় রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, ফ্যাটি অ্যাসিড, আয়রন, পটাসিয়াম ও জিঙ্ক। এসব উপাদান ত্বকের যত্নে অনন্য। বলিরেখা ও ব্রণ দূ’র ক’রতে পারে কলার খোসা। জে’নে নিন উজ্জ্বল ও সুন্দর ত্বকের জন্য কলার খোসা কীভাবে ব্যবহার করবেন।

ব্রণ দূ’র ক’রতে- কলার খোসা ব্লেন্ড করে নিন। ২ টেবিল চামচ কলার খোসার পেস্টের স’ঙ্গে আধা চা চামচ মধু ও আধা চা চামচ হলুদ মেশান। ফেস প্যাকটি ১৫ মিনিট লা’গিয়ে রাখু’ন ত্বকে। কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি ব্রণ দূ’র ক’রতে সাহায্য করবে।

বলিরেখা দূ’র ক’রতে- টানটান ত্বকের জন্য একটি কলার খোসা পেস্ট করে ডিম মিশিয়ে নিন। মি’শ্রণটি ত্বকে ২০ মিনিট লা’গিয়ে রেখে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

ব্রণের দাগ দূ’র ক’রতে- রাতে ঘুমানোর আগে কলার খোসার ভেতরের অংশ ঘষুন ব্রণের দাগের উপর। সারারাত রেখে পরদিন সকালে ধুয়ে ফেলুন ত্বক।

শুষ্ক ত্বকের যত্নে- একটি কলার খোসা গ্রিন্ডারে পেস্ট করে নিন। সমপরিমাণ ওটমিল গুঁড়া ও চিনি মেশান। পরিমাণ মতো কাঁচা দুধ মিশিয়ে মিহি পেস্ট বানিয়ে নিন। মি’শ্রণটি আধা ঘণ্টা ত্বকে লা’গিয়ে রেখে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুইবার ব্যবহার করলে দূ’র হবে ত্বকের রুক্ষ’তা।

তৈলাক্ত ত্বকের যত্নে- ১ টেবিল চামচ কলার খোসার পেস্টের স’ঙ্গে ২ চা চামচ ডিমের সাদা অংশ ও কয়েক ফোঁটা ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে নিন। ফেস প্যাকটি ২০ মিনিট ত্বকে লা’গিয়ে রেখে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে একবার ব্যবহার করলে কমবে তৈলাক্ত ভাব।

কালচে দাগ দূ’র ক’রতে- ১ টেবিল চামচ কলার খোসার পেস্ট ও ২ চা চামচ টমেটো মিশিয়ে নিন। ত্বকে লা’গিয়ে রাখু’ন আধা ঘণ্টা। ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। একদিন পর পর ব্যবহার করলে দূ’র হবে ত্বকের কালচে দাগ।

Check Also

ডায়াবেটিসের রোগীদের জন্য সকালে স’হবা’স অত্যন্ত উপযোগী

সকালবেলার যৌ’ন মি’লন মন এবং শ’রীর দুই ভাল রাখে৷ খবর শুনে ভ্রুঁ কোঁচকাচ্ছেন নিশ্চয়ই? গ’বেষ’ণার …