Home / এক্সক্লুসিভ / ২২ বছরের তরুণের প্রেমে হাবুডুবু ৬০ বছরের নারী

২২ বছরের তরুণের প্রেমে হাবুডুবু ৬০ বছরের নারী

ভালোবাসার নতুন দৃষ্টান্ত তৈরি হলো খোদ তাজমহলেরই শহর আগ্রায়। যার রূপকার দেশটির উত্তরপ্রদেশের প্রকাশ নগরের বাসিন্দা ২২ বছরের এক যুবক। তিনি প্রে’মে পড়েছেন ৬০ বছরের এক মহিলার। তাও কী’ যে সে প্রে’ম!

ওই নারীকে ছাড়া জীবন কা’টাতে পারবেনই না বলেই জানিয়ে দিয়েছেন ওই যুবক। তা বলে ৬০ বছরের মহিলা, যার স্বামী, সাত সন্তান, এমনকী’ সাতজন নাতি নাতনিও রয়েছেন! তার সঙ্গে এভাবে প্রে’মের পরিণতি কী’? কিন্তু প্রে’মে পড়লে পরিণতি নিয়ে অবশ্য ভাবতে নারাজ ওই যুবক। তিনি এখন ওই বৃদ্ধার প্রে’মেই কার্যত হাবুডুবু খাচ্ছেন।

অন্যদিকে ওই বৃদ্ধাও সাফ জানিয়েছেন তিনি ওই ছে’লেকেই বিয়ে করতে চান। এমনকী’ তার জন্য তিনি সব বন্ধন কা’টাতেই প্রস্তুত। তবে বিষয়টি শুধুই প্রে’মেই আ’ট’কে থাকেনি। মাঝেমধ্যেই ঘুরতেও যান যুগলে।

আর সাত নাতি-নাতনির ‘দাদি’ স্বপ্ন দেখেন তার ২২ বছরের প্রে’মিকের সঙ্গে ঘর বাঁ’ধারও। আর তাতেই ঘটে বিপত্তি। ‘দাদা’ ঘটনার কথা জানতে পেরেই রীতিমত গোটা পরিবার নিয়ে ওই দু’জনের বি’রুদ্ধে রুখে দাঁড়ান।

স্বাভাবিক নিয়মেই তাদের এ হেন আচরণে আ’পত্তি তোলেন প্রতিবেশীরাও। এমনকি বিষয়টি থা’না পর্যন্তও গড়ায়। ওই যুবকের বি’রুদ্ধে থা’নায় অ’ভিযোগ দায়ের করেন মহিলার স্বামী ও ছে’লে। ত’দন্তের নিয়মে আ’ট’কও করা হয় প্রে’মিক যুবকটিকে। এ যেন কোনো রোমান্টিক সিনেমা’র দৃশ্য।

আর সেই দৃশ্যে ‘হিরো’কে থা’নায় আ’ট’কে রাখলে রিল লাইফে আকছার ছুটে আসেন ‘হিরোইন’। এক্ষেত্রেও ঠিক তাই ঘটল। ‘দাদি’ও তার প্রে’মিককে বাঁ’চাতে ছুটে আসেন থা’নায়। পু’লিশের সামনে নিজেদের প্রে’মকাহিনীও শোনান অকপটে। জানান, তারা বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েই ফেলেছেন। অনুরোধ করেন যুবককে যেন জামিন দেয়া হয়।

জানা গেছে, পু’লিশ তার আবেদনে সাড়া দিয়ে প্রে’মিক যুবকটিকে জামিন দিয়ে দেয়। তবে পাশাপাশি, দু’জনকেই এই অসমবয়সী প্রে’মের ইতি টানার পরাম’র্শও দেয়।

Check Also

মাংসে লবন কম হয়েছে বলায়, মেয়ের জামাইকে পে’টালেন শ্বাশুড়ি

বাংলা সাহিত্যে জামাই ষষ্ঠীর তেমন রমরমা দেখা না গেলেও, অস্বীকার করার উপায় নেই, বাঙালির সংস্কৃতিতে …