Home / এক্সক্লুসিভ / বন্ধুর বউকে দুই বন্ধু মিলে বাগানে নিয়ে সারা রাত ধ’র্ষণ করে বলছে খুব লাগলো

বন্ধুর বউকে দুই বন্ধু মিলে বাগানে নিয়ে সারা রাত ধ’র্ষণ করে বলছে খুব লাগলো

চুয়াডাঙ্গার সদর উপজেলার যদুপুর গ্রামে বন্ধুর অনুপস্থিতিতে তার স্ত্রীকে ধ’র্ষণ করেছে অপর দুই বন্ধু। এ ঘটনায় ওয়াশিম আলি (৩০) নামে একজনকে গ্রে’ফতার করেছে পুলিশ। ওয়াশিম একই গ্রামের মৃ’ত জাফর মণ্ডলের ছেলে। গত বুধবার (৩০ অক্টোবর) রাতে গৃহবধূর স্বামী ব্যবসায়ীক কাজে বাড়ির বাইরে ছিল।

এ সুযোগে স্বামীর দুই বন্ধু একই গ্রামের মিলন ও ওয়াশিম ওই গৃহবধূকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায় পার্শ্ববর্তী একটি কলাবাগানে।সেখানে তাকে পর্যায়ক্রমে ধ’র্ষণ করে তারা। এক পর্যায়ে গৃহবধূ অচেতন হয়ে পড়লে তাকে রেখে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা। পরে পরিবারের অন্য সদস্যরা বিষয়টি টের পেয়ে গৃহবধূকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

চুয়াডা,ঙ্গা সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) লুৎফুল কবীর জানান, এ ঘটনায় ওই গৃহবধূর স্বামী বাদী হয়ে দুইজনের নাম উল্লেখ করে শুক্রবার (১ নভেম্বর) রাতে থানায় একটি গণধ’র্ষণ মামলা করেন।রাতেই এজাহারনামীয় আসামি ওয়াশিমকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। অন্য আসামীকেও গ্রেপ্তার করতে অভিযান চলছে।

নির্যা’তিতার স্বামীর অভিযোগ, মিলন ও ওয়াশিমের সঙ্গে তার ভালো সখ্যতা ছিল। সে সূত্রে অভিযুক্তরা পরিকল্পনা করে তাকে কৃষিপণ্য বিক্রির জন্য যশোরে যেতে বাধ্য করে। রাতে ফিরে আসতে না পারায় সে সুযোগে তার স্ত্রীকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধ’র্ষণ করে তারা। বাড়ি ফিরলে বিষয়টি খুলে বলে তার স্ত্রী।

এদিকে,সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার তেঘরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা স্থানীয় সংসদ সদস্য মো য়াজ্জেম হোসেন রতনের দ্বিতীয় স্ত্রী তানভী ঝুমুর। অভিযোগ এসেছে, গত ১০ মাস ধরে বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত রয়েছেন তানভী ঝুমুর। কিন্তু বিদ্যালয়ে উপস্থিত না থেকেও বেতন ঠিকই তুলে নিচ্ছেন তিনি।বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, অ সুস্থতাজনিত কারণ দেখিয়ে মাত্র একদিনের ছুটি নিয়েছিলেন তানভী ঝুমুর।

অথচ এর পর থেকে গত ১০ মাস ধরে বিদ্যালয়ে আসছেন না এ শিক্ষিকা। এমন অ ভিযোগ তদন্তে প্রমাণিত হওয়ায় প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফরের মহাপরিচালকের নির্দেশক্রমে তাকে বর খাস্ত করা হয়। সুনামগঞ্জ জেলা প্রাথমিক শিক্ষা মু. জিল্লুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, সহকারি শিক্ষক তানভী ঝুমুকে বর খাস্ত করা হয়েছে।

একই সঙ্গে তার বি রুদ্ধে বিভাগীয় মা মলা দায়েরের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।এর আগে তানভী ঝুমুর বি রুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয়ে জরুরিপত্র প্রেরণ করা হয়। ঝুমুর তাহিরপুর উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের তরং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষিক হিসেবে নিয়োগ পান।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরে এমপি রতনের প্রভাবে ও তদবির করিয়ে তিনি ডেপুটেশনে আসেন সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার তেঘরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সুত্র জানায়,অসু স্থতাজনিত কারণ দেখিয়ে মাত্র একদিনের ছুটি নিয়েছিলেন তানভী ঝুমুর। অথচ এরপর থেকে গত ১০ মাস ধরে বিদ্যালয়ে আসেননি এই শিক্ষিকা

Check Also

ত্বক-চুলের যত্নে চা খাওয়ার উপকারিতা দেখে নিন

চা কেবল শ’রীর চাঙা করে না পাশাপাশি ত্বক ও চুলের সৌন্দর্য বাড়াতেও ভূ’মিকা রাখে। রূপচ’র্চা-বি’ষয়ক …