Home / Uncategorized / গাঁ’জাতেই রয়েছে মাইগ্রেন সমস্যার নিস্তার, বলছে গবেষণা

গাঁ’জাতেই রয়েছে মাইগ্রেন সমস্যার নিস্তার, বলছে গবেষণা

গাঁজা একটি ক্ষতিকারক মা’দক হিসেবে পরিচিত। যার আছে অনেক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া। এই নে’শা ধরলে তিলে তিলে মৃ’ত্যুর দিক ধাবিত হতে হয় চিকিৎসকেরা সবসময় সেটি বুঝিয়ে থাকেন। এত অ’পকারি একটি মা’দক কখনও উপকারি হয়ে উঠতে পারে এটি হয়তো অনেকেরই জানার বাইরে। তবে আশ্চর্য হলেও সমীক্ষা বলছে যারা নিয়মিত মাইগ্রেনে ভোগেন তারা নিস্তার পাবেন গাঁজা টানলে।

তবে নে’শার উপকরণের বদলে এটিকে আয়ুর্বেদিক জড়িবুটি হিসেবে ব্যবহার করা হলে তবেই উপকার মিলবে। এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে উঠে এসেছে এসব তথ্য।

সমীক্ষা ধরে এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে গাঁজার মধ্যে থাকা ক্যানবিনাইডস আর টেপ্রনিস মাথাব্যথা কমানোর নেপথ্য উপাদান হিসেবে কাজ করে। তীব্র মাথাব্যথা বা মাইগ্রেনের সময় গাঁজার গন্ধ শুঁকলে ব্যথার তীব্রতা অনেকটাই সহ্যের মধ্যে আসে।

ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক এবং সহ অধ্যাপক কেরি কাটলারের মতে, ‘এই গবেষণার সময় অনেকেই জানিয়েছিলেন যে মাথাব্যথা এবং মাইগ্রেনের ব্যথায় গাঁজা টানলে কিছুটা আরাম মেলে।’

সম্প্রতি, জার্নাল অফ পেইনে প্রকাশিত এক গবেষণায় গবেষকরা স্ট্রেনপ্রিন্ট অ্যাপের মাধ্যমে গবেষণা করেছেন। এই গবেষণা চলাকালীন, গাঁজার আগে এবং গাঁজা টানার পরে মাথাব্যথা এবং মাইগ্রেনের রোগীদের অবস্থা পরীক্ষা করা হয়েছিল। তারপরে তথ্য বিশ্লেষণ করা হয়েছিল।

১ হাজার ৩০০ এরও বেশি রোগী গবেষণার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। গবেষণার সময় বিশেষজ্ঞরা খুঁটিয়ে দেখেছিলেন, নিয়মিত গাঁজা টানলে আদৌ মানুষের স্বাস্থ্যহানি হয় কিনা।

গবেষণা বলছে, নির্দিষ্ট মাপে গাঁজা টানলে তা ওষুধের বিকল্প। এর থেকে এমন কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায় না যাতে রোগীর অবস্থা আরও খা’রাপ হয়ে ওঠে।

-somoynews
শনিবার সন্ধ্যায় গুলশান ক্লাবে কেয়ার ইন নিড ফাউন্ডেশন আয়োজিত “লঞ্চিং সিরিমনি অব কেয়ার ইন নিড” অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতাকালে এসব কথা বলেন।স্পিকার বলেন, বাঙালি জাতির হাজার বছরের ইতিহাসে ৭ মার্চ এক অবিস্মরণীয় দিন। ১৯৭১ সালের ঐতিহাসিক এই দিনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতার ডাক দেন। এ রকম একটি দিনে কেয়ার ইন নিড ফাউন্ডেশন এর কাজ শুরুর উদ্যোগ তাৎপর্যপূর্ণ।

তিনি বলেন,বয়স্ক নাগরিকদের প্রকৃত মর্যাদা ও সম্মান দিয়ে মানসম্পন্ন পারিবারিক সেবা যত্ন প্রদান করার ক্ষেত্রে সেবা প্রদানকারীদের মানবিক দিকগুলোর প্রতি যত্নবান হতে হবে। কেয়ার ইন নিড তরুণ বেকারদের জন্য কাজের সুযোগ তৈরি করবে – যা নবীন ও প্রবীণের মধ্যে সেতুবন্ধ তৈরি করবে।কেয়ার ইন নিডের প্রেসিডেন্ট মুবিনা আসাফ এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রফিকুল ইসলাম বীর বিক্রম।

আরও পড়ুনঃবাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন,বাংলাদেশ এখন পপুলেশন ডিভিডেন্ড এর তৃতীয়ধাপের সুযোগ গ্রহণ করছে। ক্রমেই দেশে বয়স্ক জনসংখ্যা বাড়বে। তাদের জন্য স্বাস্থ্যসেবাসহ প্রয়োজনীয় সেবা নিশ্চিত করতে হবে। সরকার সামাজিক নিরাপত্তার আওতায় বয়স্ক ভাতা প্রদান করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বয়স্ক নাগরিকদের সকল সুবিধা নিশ্চিত করতে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকেও এগিয়ে আসতে হবে।আরও পড়ুনঃবাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন,বাংলাদেশ এখন পপুলেশন ডিভিডেন্ড এর তৃতীয়ধাপের সুযোগ গ্রহণ করছে। ক্রমেই দেশে বয়স্ক জনসংখ্যা বাড়বে। তাদের জন্য স্বাস্থ্যসেবাসহ প্রয়োজনীয় সেবা নিশ্চিত করতে হবে। সরকার সামাজিক নিরাপত্তার আওতায় বয়স্ক ভাতা প্রদান করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বয়স্ক নাগরিকদের সকল সুবিধা নিশ্চিত করতে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকেও এগিয়ে আসতে হবে।

Check Also

মন্ত্রীসভায় রদবদল,সবাইকে অবাক করে যারা হচ্ছেন নতুন মন্ত্রী

প্রাণঘা’তী করো’না ভাই’রাস ম’হামা’রির মধ্যেই মন্ত্রিসভায় নতুন মুখ অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে। চলতি বাজেট অধিবেশন শেষে যেকোনো …