Home / এক্সক্লুসিভ / হ্যাঁ, স্বর্গের বিষয়ে তো জ্ঞান হয়েই গেছেঃ হ”স্তমৈ”থুনের পর শ্বেতা ত্রিপাঠী

হ্যাঁ, স্বর্গের বিষয়ে তো জ্ঞান হয়েই গেছেঃ হ”স্তমৈ”থুনের পর শ্বেতা ত্রিপাঠী

‘ভিরে দি ওয়েডিং’ ছবিতে স্বরা ভাস্করের স্বমেহন দৃশ্য ও ‘লাস্ট স্টোরিজ’-এ কিয়ারা আদবানির স্বমেহনের দৃশ্য নিয়ে কিছু কম ঝড় ওঠেনি। এবার ওই একই দৃশ্যে কারণে আলোচনায় ওঠে আসছে ‘মির্জাপুর’ নামে আরও একটি ওয়েব সিরিজ। চটকদর গল্পের প্লট, অসাধারণ অভিনেতা, অভিনেত্রী, সাহসী দৃশ্য সবই রয়েছে এই ওয়েব সিরিজে।

গত ১৬ নভেম্বর থেকে ‘মির্জাপুর’ নামে এই ওয়েব সিরিজটি সম্প্রচারিত হওয়া শুরু হয়। আর এরপরেই আলোচনায় উঠে আসে অভিনেত্রী শ্বেতা ত্রিপাঠি। এই ওয়েব সিরিজে গোলু গুপ্তার চরিত্রে দেখা যাবে শ্বেতাকে। ওয়েব সিরিজের দ্বিতীয় পর্বে হস্তমেহন দৃশ্যের মাধ্যমেই দর্শকদের সঙ্গে আলাপ হয় গোলু গুপ্তার (শ্বেতা ত্রিপাঠি) চরিত্রটি।

ওই দৃশ্যে দেখা যায়, গোলু গুপ্তাকে ( শ্বেতা ত্রিপাঠিকে) গ্রন্থাগারের কোণে বসে পর্নোগ্রাফির বই পড়তে পড়তে হস্তমৈথুন করতে দেখা যায়। আর এরপরেই গোলুর (শ্বেতা ত্রিপাঠি) দিদি সুইটি (শ্রিয়া পিলগাঁওকর) তাঁকে খুঁজতে খুঁজতে তাঁকে গ্রন্থাগারে পায়। দেখে সে কোণে বসে বই পড়ছে, আর ঘেমে চান করে গেছে। এরপর যখন তাঁর দিদি সুইটি (শ্রিয়া পিলগাঁওকর) তাঁকে জিজ্ঞাসা করে, সারা বিশ্বের সমস্ত বিষয়ে তাঁর জ্ঞান হয়েছে কিনা? উত্তরে গোলু গুপ্তা (শ্বেতা ত্রিপাঠি) বলে ”হ্যাঁ, স্বর্গের বিষয়ে তো জ্ঞান হয়েই গেছে।”

এই শ্বেতা ত্রিপাঠির অভিনয় করা এই দৃশ্যই আলোচনায় উঠে এসেছে। একই ভাবে ‘ভিরে দি ওয়েডিং’-এ স্বরা ভাস্করের হস্তমৈথুন দৃশ্য ও ‘লাস্ট স্টোরিজ’-এ কিয়ারা আদবানির অভিনয় করা স্বমেহন দৃশ্য নিয়ে কিছু কম বিতর্ক হয়নি। তবে এধরনের সাহসি দৃশ্যে অভিনয় নিয়ে অভিনেত্রী শ্বেতা ত্রিপাঠি বলেন, ”পুরুষদের মতো মহিলাদেরও একটা যৌন চাহিদা আছে। আর এটা খুব স্বাভাবিক। এর মধ্যে খারাপ কিছু নেই। আমাকে যখন চিত্রনাট্য টা পড়তে দেওয়া হয়েছিল, তখনই ওয়েব সিরিজের চিত্রনাট্য সম্পর্কে ধারনা হয়ে যায়।

এই চরিত্রে অভিনয় করা নিয়ে তখন আমি আর দ্বিতীয়বার না ভেবেই রাজি হয়ে যাই। আমার এক্কেবারেই মনে হয়নি এটা সাহসি দৃশ্য।এটা খু সাধারণ একটা বিষয়, প্রতিদিনের চা-কফি খাওয়ার মতো। আর আমি বুঝতে পারছি না এই দৃশ্যটা নিয়ে এতো আলোচনার কী আছে? আমার কাছে যখন এটা ভীষণই স্বাভাবিক বিষয় তাহলে অন্যদের কাছে কেন নয়? ”

শ্বেতা এই দৃশ্য নিয়ে আরও বলেন, ” পুরুষরা এই ধরনের কাজ করেন তো সাহসি হয়ে যায়, আর মহিলারা করলেই সভ্যতা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে, কিন্তু কেন? কামসূত্র আমাদের দেশের সংস্কৃতিরই অঙ্গ। আমাদের এটা নিয়ে গর্ব করা উচিত। ”

সম্প্রতি এক সাক্ষাত্কারে ক্ষুব্ধ শ্বেতা বলেন, আমি জানি না আপনারা সবাই এটা নিয়ে কেন কথা বলছেন? আপনারা যখন সিরিজটা দেখবেন, আলাদা করে ওই দৃশ্যের কথা মনে থাকবে না। যখন জানতে পারলাম এই দৃশ্যটা করতে হবে, তখন আলাদা করে জানতেও চাইনি, কীভাবে করব? খুব সাধারণ একটা দৃশ্য। এছাড়া বাস্তবে হস্তমৈথুন করা, আর কফি খাওয়া সমান কথা। এটি ভিন্ন একটা অনুভূতি।

তবে এই প্রথম নয়, এর আগে ‘হারমখোর’ ছবিতেও নওয়াজউদ্দি সিদ্দিকির সঙ্গে ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করেন শ্বেতা ত্রিপাঠি। প্রসঙ্গত, শ্বেতা ত্রিপাঠি ছাড়াও পঙ্কজ ত্রিপাঠী, বিক্রান্ত মেশি, হার্সাত গৌর, অমিত সিয়াল ও ‘মান্টো’ খ্যাত রাশিকা দুগ্গাল এবং আলি ফজলের মতো অভিনেতা অভিনেত্রীরা এই ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেছেন। সাহসি দৃশ্য ছাড়াও একাধিক খুন-খারাবির দৃশ্য রয়েছে এই ওয়েব সিরিজটিতে।

Check Also

দেড় মাস হলো বিয়ে হয়েছে আর সেদিন থেকেই ঘুমাতে পারিনা: সাদিয়া রহমান

সোহান অফিস যাওয়ার পর শুয়ে থাকতে থাকতে ঘু’মিয়ে গিয়েছিলাম। এমন সময়ে দরজায় কলিং বেল বাজলো …