Home / এক্সক্লুসিভ / সে’ক্সের সময়ে ভুলেও নারীর এই ৪ জায়গায় হাত দেবেন না

সে’ক্সের সময়ে ভুলেও নারীর এই ৪ জায়গায় হাত দেবেন না

স্বামী-স্ত্রী একজন আরেকজনের কাছে ঘনিষ্ট হওয়ার অন্যতম হলো স'ঙ্গম। আর স'ঙ্গমের আনন্দে উপভোগ করার বদলে যদি ব্যাথা বা বির'ক্ত হয় তাহলে আনন্দটাই মাটি হয়ে যায়। ব্যাপারটা মূলত ছোঁয়াছুঁয়িরই! কিন্তু, আপনার সঙ্গিনী তাঁর শরীরের সব জায়গাতেই আপনার স্পর্শ উপভোগ করবেন, এমন কোনও মানে আছে কি?

আদতে কিন্তু নেই! তাই একটু সতর্ক থাকুন। সে'ক্সের সময়ে ভুলেও সঙ্গিনীর শরীরের এই ৪ জায়গায় হাত দেবেন না।

যৌ'নাঙ্গের নিচের দিকে:
যৌ'নাঙ্গ যে কোনও মানুষেরই শরীরের সবচেয়ে স্পর্শকাতর জায়গা। বিশেষ করে নারীর। তাই স'ঙ্গমের সময়ে যৌ'নাঙ্গের নিচের দিক, যাকে ইংরেজিতে বলে কার্ভিক্স, সেখানে হাত দেবেন না। তাতে ভাল লাগার চেয়ে ব্যথা পাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

যোনিমুখ:
যোনিমুখ অবশ্যই নারী শরীরের আরও এক স্পর্শকাতর অঙ্গ। ইংরেজিতে যাকে বলে ক্লিটোরিস। এই অংশে হাত দিলে নারী উ'ত্তেজিত হন ঠিক কথা। কিন্তু, তার কায়দাটা মাথায় রাখা দরকার। আলতো করে যোনিমুখে আঙুলের ছোঁয়া নারীকে উ'ত্তেজিত করবে। কিন্তু, আচমকাই ওই অঙ্গে হাত দিলে ব্যথা লাগতে পারে। কেন না, সঙ্গিনী তখন সেটার জন্য প্রস্তুত থাকেন না।

পায়ের পাতার তলা:
পায়ের পাতার তলায় হাত দিলে বেশির ভাগ মানুষেরই সুড়সুড়ি লাগে। এটা মাথায় রেখে ওই সময়টায় সঙ্গিনীর সঙ্গে খুব বেশি খুনসুটিতে না যাওয়াই ভাল! প্রথম দু’-একবার ব্যাপারটা তাঁকে উ'ত্তেজিত করতে পারে! পরের বার কিন্তু বির'ক্তিই জন্মাবে তাঁর মনে!

পায়ু:
অ্যানাল সে'ক্সের সময়ে অনেকেই সঙ্গিনীর পায়ু স্পর্শ করে থাকেন। আঙুল দিয়ে। খেয়াল রাখুন, আচমকা আঙুল দিলে তাঁর ব্যথা লাগতে পারে। তাই অ্যানাল সে'ক্সের সময়ে সঙ্গিনীর পায়ু স্পর্শ করার আগে আঙুলে লুব্রিকেটর দিয়ে নেওয়াটা বাঞ্ছনীয়।
অন্যথায় রতিসুখ আপনার জন্য নয়!

Check Also

আমাকে ‘বিয়ে’ করলে ‘পাত্র পাবে’ ‘৯০ লাখ’ টাকা:বললেন পাত্রী

ব্যক্তিগত জীবনে ডি”ভো’র্সি। ফের বিয়ে করতে চান। কিন্তু পাত্র ২৩ বছর বয়সী। একই সাথে বা’ন্ধবী …