Home / সারাদেশ / সম্পর্কের অবনতি হওয়ায় গৃহবধূর ভিডিও ফাঁসের হুমকি, পরকীয়া প্রেমিক গ্রেফতার

সম্পর্কের অবনতি হওয়ায় গৃহবধূর ভিডিও ফাঁসের হুমকি, পরকীয়া প্রেমিক গ্রেফতার

বগুড়ায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গৃহবধূর আপত্তিকর ভিডিও ধারণ এবং তা ফাঁসের হুমকি দিয়ে ব্ল্যাকমেইল করার অভিযোগে পরকীয়া প্রেমিককে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ। এ সময় তার কাছ থেকে একটি স্মার্টফোন, দুটি সিম ও আপত্তিকর ভিডিও রাখা একটি মেমরি কার্ড উদ্ধার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃত মাহমুদ মুন্না বগুড়ার শেরপুর উপজেলার পূণ্যাতলা শ্রীরামপুরের জমশেদ আলীর ছেলে। রোববার রাতে নিজ এলাকা থেকে গ্রেফতারের পর সোমবার দুপুরে তাকে তাকে আদালতের মাধমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

জেলা ডিবি পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মুন্না শেরপুর উপজেলার একটি মোবাইলের দোকানে ওই গৃহবধূকে প্রথম দেখতে পান। প্রথম দেখাতেই ওই গৃহবধূকে ভালো লেগে যায় তার। পরে কৌশলে তার ফেসবুক আইডি সংগ্রহ করে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠান মুন্না। সেই থেকে তারা নিয়মিত ম্যাসেঞ্জারে কথা বলতেন। এতে ধীরে ধীরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এক পর্যায়ে মুন্না ওই গৃহবধূর কাছে অশ্লীল ছবি ও ভিডিও চান। কিন্তু তিনি রাজি না হওয়ায় দুজনের মধ্যে ঝামেলা সৃষ্টি হয়।

ডিবি পুলিশের এ কর্মকর্তা আরো জানান, মুন্না পরবর্তীতে বিয়ের প্রলোভন দেখান ওই গৃহবধূকে। এরপর আপত্তিকর অবস্থায় ভিডিও কলে আসতে বলেন। তার কথা অনুযায়ী ওই গৃহবধূ আপত্তিকর অবস্থায় ভিডিও কলে এলে মুন্না সেই ভিডিও রেকর্ড করে রাখেন। পরবর্তীতে আবার তাদের সম্পর্কের অবনতি হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মুন্না ওই গৃহবধূর আপত্তিকর ভিডিও ইন্টারনেটে ফাঁস করার হুমকি দিয়ে শারীরিক সম্পর্কের প্রস্তাব দেন। এমন পরিস্থিতিতে কোনো উপায় না পেয়ে পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী গৃহবধূ।

বগুড়া জেলা ডিবি পুলিশের ইনচার্জ সাইহান ওলিউল্লাহ জানান, গৃহবধূর অভিযোগের ভিত্তিতে মুন্নাকে গ্রেফতার করা হয়। মুন্নার মোবাইলে বিভিন্ন বয়সের একাধিক নারীর আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও পাওয়া গেছে। তার বিরুদ্ধে শেরপুর থানায় পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Check Also

সাইদুরের মাথাটার কিছুই ছিল না, হেলমেটটা ছিল অক্ষত

স্ত্রী রুনু, সঙ্গে দেড় বছরের সন্তান রেহান ও ৯ বছরের রোহান—সবাইকে বেশ অনিশ্চয়তার মুখে ফেলে …