Home / সারাদেশ / লকডাউনের পরিকল্পনা নিয়ে যা বললেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব

লকডাউনের পরিকল্পনা নিয়ে যা বললেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব

দেশে করোনা পরিস্থিতি ভালো। এই মুহূর্তে সরকার লকডাউনের পরিকল্পনা নিয়ে কিছু ভাবছে না বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

বুধবার রাজধানীর একটি টিকাকেন্দ্রে বুস্টার ডোজ নিতে এসে একথা জানান তিনি। করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন অতি সংক্র’মণশীল হওয়ায় বিভিন্ন দেশে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে এটি। বাংলাদেশে সাতজন এতে আ’ক্রান্ত হয়েছেন।

এরই মধ্যে করোনার ওমিক্রন ধরন প্রতিরোধে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও শুরু হয়েছে টিকার বুস্টার ডোজ দেওয়া কার্যক্রম।
বুস্টার ডোজ নিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, দেশে করোনা পরিস্থিতি ভালো আছে। আপাতত লকডাউনে যাওয়ার কোনো পরিকল্পনা নেই।
তিনি বলেন, দেশে করোনা ভ্যাকসিনের পর্যাপ্ত মজুদ আছে। শিগগির যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরো ২৫ লাখ ফাইজারের টিকা আসছে। তবে শুধু তা নিয়েই মহামারি প্রতিরোধ করা যাবে না। টিকাদানের পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধিও মেনে চলতে হবে।

গতকাল মঙ্গলবার থেকে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন প্রতিরোধে টিকার বুস্টার ডোজ দেওয়া শুরু হয়। স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সিনিয়র সচিব লোকমান হোসেন জানান, গত কিছুদিনে ওমিক্রনের কারণে বিশ্বে হাজার হাজার ফ্লাইট বাতিল হয়েছে। আমাদের দেশে কিছু পরিমাণে ওমিক্রন পাওয়া গেছে। ওমিক্রনের সংক্র’মণ থেকে রক্ষা পেতে সবাইকে টিকা নিতে হবে ও মাস্ক পরতে হবে। তিনি আরো জানান, করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট বিষয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন ও পৌরসভা পর্যায়েও কথা বলা হয়েছে, যাতে সেসব এলাকার রিকশাচালক থেকে শুরু করে সবাই টিকা নেন।

লোকমান হোসেন জানান, বাংলাদেশ টিকা উৎপাদন করে না। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে আমরা দেশের সবাইকে টিকা দিতে পারছি। এর আগে, ১৯ ডিসেম্বর করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন প্রতিরোধে দেশে করোনা টিকার বুস্টার ডোজ প্রয়োগের কার্যক্রম শুরু হয়। ঐদিন রাজধানীর মহাখালীতে বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস অ্যান্ড সার্জনসে (বিসিপিএসএ) কার্যক্রমটির উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

ঐ সময় স্বাস্থমন্ত্রী বলেছিলেন, টিকা নিবন্ধনের প্ল্যাটফর্ম ‘সুরক্ষা’য় বুস্টার ডোজ সংক্রান্ত তথ্য ২৮ ডিসেম্বরের আগে প্রস্তুত হচ্ছে না। তবে ‘সুরক্ষ’ প্ল্যাটফর্মে আপডেট তথ্য না এলেও দেশে বুস্টার ডোজের কার্যক্রম চলমান থাকবে।

পরে ২২ ডিসেম্বর স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা জানান, করোনা টিকার বুস্টার ডোজ নিতে নতুন করে কোনো নিবন্ধনের প্রয়োজন নেই। গাজীপুরের শ্রীপুরে একটি পোশাক কারখানায় শ্রমিকদের করোনা টিকাদান কর্মসূচি উদ্বোধনকালে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

ডা. সেব্রিনা ফ্লোরা বলেছিলেন, সুরক্ষা অ্যাপে’র সক্ষমতা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে খুব শিগগিরই সারাদেশে দ্বিতীয় ডোজ নেয়া মানুষের কাছে বুস্টার ডোজের জন্য এসএমএস চলে যাবে। বুস্টার দিতে টিকার কোনো সংকট দেখা দেবে না। দেশে পর্যাপ্ত করোনার টিকা মজুদ রয়েছে। গ্রাম পর্যায়েও টিকা নেয়া মানুষ বুস্টার ডোজ পাবে।

Check Also

দেড় বছরের সন্তানকে বাঁচাতে খালি হাতেই বাঘের সঙ্গে মায়ের লড়াই

ভারতের মধ্যপ্রদেশে বন থেকে হঠাৎই লোকালয়ে এসে দেড় বছরের এক শিশুকে আক্রমণ করে বসে বাঘ। …