Home / Daily Health Tips / রাত থেকে চলছে বাস-লঞ্চ, ভোর থেকে ট্রেন

রাত থেকে চলছে বাস-লঞ্চ, ভোর থেকে ট্রেন

মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে টানা আটদিন কঠোর লকডাউন শিথিল করায় গতকাল বুধবার রাত থেকে দূরপাল্লার বাস ও লঞ্চ চলাচল শুরু হয়েছে। আর আজ ভোর থেকে চলছে ট্রেনও।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে জারি করা প্রজ্ঞাপনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে এক আসন ফাঁকা রেখে বাস ও ট্রেন চলাচলের এ অনুমতি দেওয়া হয়। আর সব পরিবহনেই আগের মতো ৬০ শতাংশ বেশি ভাড়া যাত্রীদের দিতে হবে।

এদিকে বাস, ট্রেন ও লঞ্চ চলাচল উপলক্ষে গতকাল বুধবার দিনভর রাজধানীর বাস টার্মিনাল, ট্রেন স্টেশন ও লঞ্চ ঘাটে সংশ্লিষ্ট শ্রমিকদের নানা তৎপরতা দেখা গেছে। অল্প দিনের জন্য হলেও বিধিনিষেধ শিথিল হওয়ায় খুশি পরিবহন খাত সংশ্লিষ্টরা। সেই সঙ্গে খুশি বাড়ি ফেরা সাধারণ মানুষও।

দূরপাল্লার বাস চলাচলের খবরে রাজধানীর বিভিন্ন টার্মিনালে বুধবার রাত থেকে যাত্রীদের ভিড় শুরু হয়। যাত্রীরা অগ্রিম টিকিট বা কেউ কেউ তৎক্ষণাৎ টিকিট কেটে বিভিন্ন পরিবহনের মাধ্যমে নির্ধারিত গন্তব্যের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন। রাতে বাস চালু করা উপলক্ষে স্বাস্থ্যবিধির প্রতিও গুরুত্ব দিতে দেখা গেছে সংশ্লিষ্টদের।

এদিকে দক্ষিণাঞ্চলের যাত্রীদের বরণ করে নিতে নবরূপে সেজেছে রাজধানীর সদরঘাট। টার্মিনালের গ্যাংওয়ে, পন্টুনগুলো সংস্কার ও নতুন পন্টুন বসানো হয়েছে। সদরঘাটে বুধবার রাত ১২টা থেকে চাঁদপুরের লঞ্চ চলাচল শুরু হয়েছে। আজ সকাল থেকে সব রুটে লঞ্চ চলবে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) ট্রাফিক বিভাগের পরিচালক রফিকুল ইসলাম বলেন, বুধবার রাত ১২টা থেকে চাঁদপুরের লঞ্চ চলাচল শুরু হয়েছে।

বুধবার কমলাপুর রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার ভোর ৪টা থেকে দেশের বিভিন্ন গন্তব্যের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন রুটে ৩৮ জোড়া আন্তঃনগর এবং ১৯ জোড়া মেইল বা কমিউটার ট্রেন চলাচল করবে। আর টিকিট মিলবে শুধু অনলাইনে।

Check Also

ভাগ্যক্রমে বেঁচে যান তাসলিমা ও তার ১০ বছরের সন্তান

চিকিৎসা করাতে গ্রাম থেকে ছেলে ও ননদকে সঙ্গে নিয়ে চট্টগ্রাম শহরে এসেছিলেন তাসলিমা। কিন্তু চিকিৎসকের …