Home / সারাদেশ / ভিডিও কলে গিয়ে সর্বনাশ, এরপর একাধিকবার স্কুলছাত্রীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক

ভিডিও কলে গিয়ে সর্বনাশ, এরপর একাধিকবার স্কুলছাত্রীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক

প্রেমের ফাঁ’দে ফে’লে একাদশ শ্রেণীর এক ছাত্রীর (১৮) সঙ্গে শা’রীরিক সম্পর্ক স্থাপন করে ছবি ও ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই আ’পত্তিকর ছবি ও ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার অ’ভিযোগে নাঈম উদ্দিন (২২) নামের এক যুবককে গ্রে’ফতার করেছে পুলিশ। গ্রে’ফতার নাঈম বান্দরবানের লামা উপজে’লার কেদারবাদ গ্রামের মৃ’ত নাছির উদ্দিন এর ছেলে মোঃ নাঈম উদ্দিন।

পুলিশ জানায়, চকরিয়া উপজে’লার একটি কলেজের একাদশ শ্রেনীতে পড়ুয়া ১৮ বছর বয়সী ওই ছাত্রীর সঙ্গে বিগত তিন বছর পূর্বে গ্রে’ফতার নাঈমের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এই প্রেমের সম্পর্কের সুবাধে নাঈমের সাথে ওই ছাত্রীর প্রতিনিয়ত মোবাইল ফোনে কথাবার্তা হতো। প্রায় সময় প্রেমিকের অধিকাংশ আবদার পূরণ করতেন ওই ছাত্রী। এরই সুবাদে একসময় প্রেমিক নাঈম ওই ছাত্রী কাছে তার একান্ত ব্যক্তিগত ছবি ও ভিডিও চান। প্রথমে রাজি না হলেও বিশ্বাস এবং ভালবাসার কসম দিয়ে ওই ছাত্রীকে ভিডিও কলে আসতে বা’ধ্য করেন নাঈম। এরপর ভিডিও কলে ওই ছাত্রীর কিছু আ’পত্তিকর ছবি ভিডিও ধারন করে রাখে নাঈম।

এক পর্যায়ে নাঈম রিপার সাথে একান্তে দেখা করতে চায়। এরপর গত ৬ সেপ্টেম্বর রাত ১০টার দিকে সময় নাঈম বান্দরবন এর লামা থেকে চকরিয়া আসে এবং স্থানীয় লোকজনের চোখ ফাঁকি দিয়ে ওই ছাত্রীর শোবার ঘরে ঢুকে পড়ে। রাতে ত’রুণীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার ধ”ণ করে এবং তার ব্যাক্তিগত মোবাইলে সেই দৃশ্য রেকর্ড করে রাখে। এরপর ভোর হওয়ার আগেই নাঈম কৌশলে ওই ছাত্রীর শোবার ঘর থেকে বের হয়ে বান্দরবন চলে যায়। এরপর থেকে ওই ছাত্রীর সঙ্গে নাঈম যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। পরবর্তীতে একসময়ে ওই ছাত্রীর ফোন কল রিসিভ করলেও নাঈম তার মোবাইলে কল দিতে নি’ষেধ করে এবং কল দিলে তার ও একান্ত মূহুর্তের আ’পত্তিকর ছবি ও ভিডিও অনলাইনে ভাইরাল করে দিবে বলে হু’মকি দেয়।

এরপর গত ২২ ফেব্রুয়ারি নাঈম “রিপা আক্তার“ (ছদ্ম নাম) নামে একটি ফেইক ফেইসবুক আইডি খুলে ওই ত’রুণীর আ’পত্তিকর ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করে করে ভাইরাল করে দেয়।

ভি’কটিম ওই ছাত্রী মা বি’ষয়টি জানতে পেরে চকরিয়া থানায় একটি অ’ভিযোগ দা’য়ের করেন। চকরিয়া থানা পুলিশ অ’ভিযোগটি মা’মলা হিসেবে রুজু করে এবং এর পরপরই শুরু হয় এজাহারভুক্ত আসামী নাঈমকে গ্রে’ফতারে অ’ভিযান। এরই পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৭ জুন রাত ৮ টার সময় চকরিয়া থানা পুলিশের একটি চৌকস টিম চকরিয়া থানাধীন বরইতলী ইউনিয়নের বানিয়াছড়া এলাকায় অ’ভিযান পরিচালনা করে অ’ভিযুক্ত প্র’তারক প্রেমিক মোঃ নাইম উদ্দিন (২২) গ্রে’ফতার করে এবং তার হেফাজত হতে উপরোক্ত ঘটনায় ব্যবহৃত একটি স্মার্টফোন জ’ব্দ করে যার মধ্যে আলামত সংরক্ষিত ছিল।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মুহাম্ম’দ জোবায়ের বলেন, এ ঘটনায় নারী ও শি’শু নি’র্যাতন দ’মন আইন তৎসহ প’র্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মা’মলা রুজু হয়েছে। গ্রে’ফতারকৃত আ’সামিকে গতকাল আ’দালতের মাধ্যমে জে’লহাজতে পাঠানো হয়েছে।

Check Also

স্ত্রীর অনুরোধে লাইফ সাপোর্টে থাকা স্বামীর থেকে সংগ্রহ করা হল শুক্রাণু

করোনা আক্রান্ত স্বামী হাসপাতালে ভর্তি। রয়েছেন লাইফ সাপোর্টে। কিন্তু স্ত্রী চান সন্তান ধারণ করতে। সেই …