Home / এক্সক্লুসিভ / তাবিজ করে প্রেমিকাকে না পেয়ে কবিরাজকে কুপিয়ে হ’ত্যা

তাবিজ করে প্রেমিকাকে না পেয়ে কবিরাজকে কুপিয়ে হ’ত্যা

চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার শীলকুপে নারী কবিরাজ ফাতেমা বেগমকে (৪৩) কুপিয়ে হ'ত্যা করেছে এক যুবক। তাবিজে কাজ না করায় তার কাছে চিকিৎসা নিতে আসা যুবক মো. এহেছান এ হ'ত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন বলে অভিযোগ।

আজ সোমবার (১২ জুলাই) সকালে বাঁশখালীর শীলকূপ ইউনিয়নের টাইমবাজারের পশ্চিমে মোস্তাক আহমদের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ৩ জন। আহতরা হলেন- ফাতেমার মেয়ে পাখি আক্তার (২২) ও বৃষ্টি (১০) এবং রাবেয়া বেগম (৩৫) নামে এক নারী।

অভিযুক্ত এহছান একই ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ড মাইজ পাড়া মেহেরজান বাপের বাড়ীর মো. ইব্রাহীমের ছেলে। ঘটনার পর পুলিশ এহেছানকে (২৪) আটক করেছে।

বাঁশখালী থানা পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, বাঁশখালীর শীলকূপ ইউনিয়নের টাইমবাজারের পশ্চিমে মোস্তাক আহমদের স্ত্রী ফাতেমা বেগম হাজিরা (কবিরাজ) দেখার কাজ করেন। এহেছান তার প্রেমিকাকে পেতে ফাতেমার কাছ থেকে তাবিজ নিয়েছিলেন। তাতে ফলাফল না পেয়ে তার কাছে ডাব পড়া নিতে আসেন।

এহেছান তার ভালোবাসার মেয়েটিকে পেতে ফাতেমার কাছে ‘ডাব পড়া’ দিতে বলেন। ফাতেমা অসম্মতি জানালে মুহূর্তেই ক্ষীপ্ত হয়ে কাছে থাকা ব্যবহৃত দা দিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে র'ক্তাক্ত করেন। বাড়ি থেকে বের করে রাস্তায় দা দিয়ে ঘাড়ে, পিঠে, মাথায় জখম করেন। বাধা দিতে গিলে ফাতেমার মেয়ে পাখি আক্তার, বৃষ্টি এবং রাবেয়া বেগমকে কুপিয়ে জখম করেন।

স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে বাঁশখালী হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা করে জরুরি ভিত্তিতে চমেক হাসপাতালে নেওয়ার পথে ফাতেমার মৃত্যু হয় বলে জানান তার ছেলে বাদশা।

বাঁশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সফিউল কবীর বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ঘটনায় জড়িত যুবককে আটক করা হয়েছে।

Check Also

লিপস্টিক ব্যবহারে ভয়ংকর ক্ষতি

নারীদের সাজের প্রধান অনুষঙ্গ হচ্ছে লিপস্টিক। পোশাকের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে নারীরা তাদের ঠোঁট রাঙিয়ে থাকেন। …