Home / সারাদেশ / ডিসকভারী দেখে পোকা-মাকড় খেয়ে জঙ্গ’লে বাস করার উদ্দেশ্যে বাড়ি ছেড়েছিল এই তিন শিশু!

ডিসকভারী দেখে পোকা-মাকড় খেয়ে জঙ্গ’লে বাস করার উদ্দেশ্যে বাড়ি ছেড়েছিল এই তিন শিশু!

ডিসকভারি চ্যানেল দেখে উদ্বুদ্ধ হয়ে দ্বীপে বসবাস করার উদ্দেশ্যে ঘর পালানো তিন শি’শুকে উ’দ্ধার করেছে বরগুনার আমতলী থা’না পু’লিশ। পরে উ’দ্ধারকৃত শি’শুদের পরিবারের কাছে তুলে দেয়া হয়েছে আমতলী থা’না সূত্রে জা’না যায়

নীলফামা’রীর বড়গাছা ও নরসিংদির মো. ফারুক হোসেনের পুত্র মিয়াদ (৯), মো. রেজাউল ইসলামের পুত্র তন্ময় (১৩) ও মো. মিজানুর রহমানের পুত্র মুন্না (১৩) ডিসকভারি টিভি চ্যানেল দেখে উদ্বুদ্ধ হয়ে পোকা মাকড় খেয়ে দ্বীপে বসবাস করবে বলে বাড়ি

থেকে গত সোমবার পালিয়ে আসে। এ তিন শি’শুকে আমতলী থা’না পু’লিশ মঙ্গলবার রাত ৮টায় সমুদ্র সৈকত কুয়াকাটা যাওয়ার পথে আমতলী লঞ্চঘাট থেকে উ’দ্ধার করে হেফাজতে রাখে। প’ড়ে অভিভাবকদের খবর দেয়া হয়। তারা এসে বুধবার শি’শুদের বাড়ি নিয়ে যান। শি’শুদের অভিভাবক মিজানুর

রহমান, ফারুক হোসেন ও সাইফুল ইসলাম জা’নিয়েছেন, বিদেশী টিভি চ্যানেলের অ্যাডভেঞ্চার সিরিজগুলো দেখে তারা উৎসাহি হয়ে পোকা মাকড় খেয়ে দ্বীপে বসবাস করবে বলে বাড়ি ছে’ড়েছিল। আমতলী থা’নার ওসি মো. আলাউদ্দিন মি’লন বলেন, নীলফামা’রী জে’লার বড়গাছা ও নরসিংদীর ঘর পালানো তিন

শি’শুকে উ’দ্ধার করে অভিভাবকদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।বরগুনার আমতলীতে উ’দ্ধার হওয়া তিন শি’শুকে, থা’না পু’লিশ মঙ্গলবার রাতে অভিভাবকদের কাছে স্তান্তর করেছে। ওই শি’শুরা সোমবার নীলফামা’রী ও নরসিংদির বাড়ি থেকে পালিয়ে আমতলী আসে। আমতলী থা’নার ওসি মো. আলাউদ্দিন

জা’নিয়েছেন, নীলফামা’রী জে’লার বড়গাছা থা’না ও নরসিংদি জে’লার গাবতলী থা’নার তিন শি’শু মিয়াদ (৯), তনয় (১৩) ও মুন্না (১৩) বাড়ি থেকে পালিয়ে কুয়াকাটা পর্যটন কে’ন্দ্রে যাওয়ার, পথে আমতলী থা’না পু’লিশ তাদের উ’দ্ধার করে হেফাজতে রাখে। প’ড়ে অভিভাবকদের খবর দেয়া হলে তারা এসে শি’শুদের বাড়ি নেয়ে যান। শি’শুদের অভিভাবক মিজানুর

রহমান, ফারুক হোসেন ও স্ইাফুল ইসলাম জা’নিয়েছেন, ডিসকভারী টিভি চ্যানেলের অ্যাডভেঞ্চার সিরিজগুলো দেখে তারা উৎসাহী হয়ে পোকা-মাকড় খেয়ে জঙ্গলে বাস করার উদ্দেশ্যে বাড়ি ছে’ড়েছিল।

Check Also

স্ত্রীর অনুরোধে লাইফ সাপোর্টে থাকা স্বামীর থেকে সংগ্রহ করা হল শুক্রাণু

করোনা আক্রান্ত স্বামী হাসপাতালে ভর্তি। রয়েছেন লাইফ সাপোর্টে। কিন্তু স্ত্রী চান সন্তান ধারণ করতে। সেই …