Home / সারাদেশ / একা আছি শুনতেই শাশুড়িকে জাপটে ধরল জামাই

একা আছি শুনতেই শাশুড়িকে জাপটে ধরল জামাই

নওগাঁর নিয়ামতপুরে জামাইয়ের বিরুদ্ধে চাচি শাশুড়িকে ধ'র্ষণচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় শুক্রবার নিয়ামতপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন ভুক্তভোগী নিজেই।

কয়েকদিন আগে ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের মহিষকুড়ি গ্রামে। অভিযুক্ত ৩৫ বছর বয়সী যুবকের নাম মুকুল হোসেন। তিনি রাজশাহীর তানোর উপজেলার বংপুর গ্রামের শুকুর আলীর ছেলে। তার শ্বশুরবাড়ি মহিষকুড়ি গ্রামে।

ভুক্তভোগী গৃহবধূ বলেন, ঘটনার দিন সন্ধ্যার দিকে আমাকে ফোন করেন ভাতিজি জামাই। বাড়িতে কে কে আছেন জানতে চান তিনি। সরল মনে আমিও জামাইকে বলি- ‘কেউ নেই এখন, আমি একাই আছি’। কিছুক্ষণ পর জামাই এসে ১০০ টাকা চান। টাকা নিতে ঘরে গেলে পেছন থেকে তিনি আমাকে জাপটে ধরেন। এমন সময় আমার স্বামী এসে জামাইকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন।

ভুক্তভোগীর স্বামী বলেন, বাড়ি এসে দেখি আমার স্ত্রীর সঙ্গে ধস্তাধস্তি করছেন জামাই। ভাতিজি জামাইকে হাতেনাতে ধরে বিষয়টি আমার ভাইসহ প্রতিবেশীদের জানাই। সুষ্ঠু বিচার করে দেবেন বলে জামাইকে নিজ বাড়ি নিয়ে যান আমার ভাই। কয়েকদিন পার হলেও বিচার না করায় থানায় মামলা করেন আমার স্ত্রী।

নিয়ামতপুর থানার ওসি হুমায়ুন কবির বলেন, এ ঘটনায় মুকুল হোসেনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন ভুক্তভোগী গৃহবধূ। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Check Also

সাইদুরের মাথাটার কিছুই ছিল না, হেলমেটটা ছিল অক্ষত

স্ত্রী রুনু, সঙ্গে দেড় বছরের সন্তান রেহান ও ৯ বছরের রোহান—সবাইকে বেশ অনিশ্চয়তার মুখে ফেলে …