Home / সারাদেশ / আম্পায়ারিংকে বিদায় জানালেন সেই মুনিরুজ্জামানঃ বললেন স্টাম্পে সাকিবের ‘লাথি’ কষ্ট দিয়েছে

আম্পায়ারিংকে বিদায় জানালেন সেই মুনিরুজ্জামানঃ বললেন স্টাম্পে সাকিবের ‘লাথি’ কষ্ট দিয়েছে

মাঠ ও মাঠের বাহিরে নানান কর্মকাণ্ডের কারনে সাকিব আলোচিত- সমালোচিত।তবে একটা কথা অস্বীকার করার কোন উপায় নেই তিনি বর্তমান বিশ্বের সেরা একজন ক্রিকেটার।

নতুন খবর হচ্ছে, সবশেষ ঢাকা প্রিমিয়ার লিগেই (ডিপিএল) আম্পায়ারিং নিয়ে বেশ সমালোচনা হতে দেখা গেছে। সাকিব আল হাসানের আবেদনে সাড়া না দেয়ায় আম্পায়ারের সামনেই লাথি দিয়ে স্টাম্প ফেলে দেয়া কিংবা উপড়ে ফেলা। যদিও সাকিব স্বীকার করেননি ঠিক কী কারণে স্টাম্প উপড়ে ফেলেন।

এদিকে আরেক সিনিয়র ক্রিকেটার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদেরও আম্পায়ারের সঙ্গে তর্কে জড়ানো ভালো ভাবে নেয়নি দেশের আপামর ক্রিকেট সমর্থকরা। দেদারছে গালি দিয়েছেন আম্পায়ারদের।

আর এসব নিতে পারেননি ঘরোয়া ক্রিকেটের অন্যতম আম্পায়ার মুনিরুজ্জামান টিংকু। ডিপিএল-এর চলতি মৌসুম শেষ হতে না হতেই জানিয়ে দিলেন, আর আম্পায়ারিং করবেন না। ফেসবুকে স্টাটাসের মাধ্যমে আম্পায়ারিংকে বিদায় জানান তিনি।

কিন্তু কেন এভাবে হুট করে বিদায় জানিয়ে দিলেন? তিন জানিয়েছেন, এত অপবাদ আর অপমান নিতে পারছেন না তিনি।

“সত্যি বলতে হুট করেই সিদ্ধান্তটা নেয়া। ভাবলাম, নিজের সম্মানের থেকে তো আর বড় কিছু হতে পারে না। তাই ভাবলাম, আমার জার্নিটা এখানেই শেষ হওয়া দরকার।”

চলতি ডিপিএলের বেশ কিছু সিদ্ধান্তই মানতে পারেননি ক্রিকেটাররা। সেসবের ক্ষোভ মাঠেই ঝাড়তে দেখা গেছে অনেককে। তবে মুনিরুজ্জামান মনে করছেন, ভুল সবাই করে। ভুলের ঊর্ধ্বে কেউই নয়।

“দেখেন, ভুল শুধু আমরা না। আইসিসির এলিট প্যানেলে থাকা আলিম দার, কুমার ধর্মসেনাও ভুল করেছেন বিতর্কিত হয়েছেন। কিন্তু এই সময়ে এসে দেখলাম, আমাদের যারা খেলোয়াড়রা আছেন তারা এই সামান্য ভুলগুলো মেনে নিতে চাচ্ছেন না।”

সাকিবের স্টাম্পে লাথি দেয়ার ইস্যু টেনে মুনিরুজ্জামান বলেন, “দেখেন সাকিব আল হাসানকে দেখে আমাদের দেশের উঠতি ক্রিকেটাররা শিখছে। সাকিবদের মতো খেলোয়াড়রা যখন এমন কিছু করে বসে, তখন ভবিষ্যত ক্রিকেটাররাও এমন আচরণ করতেই পারে। সেই দিন দেখার আগেই এখনই সরে দাঁড়ানো উচিৎ মনে করেছি।”

সূত্র, আরটিভি

Check Also

স্ত্রীর অনুরোধে লাইফ সাপোর্টে থাকা স্বামীর থেকে সংগ্রহ করা হল শুক্রাণু

করোনা আক্রান্ত স্বামী হাসপাতালে ভর্তি। রয়েছেন লাইফ সাপোর্টে। কিন্তু স্ত্রী চান সন্তান ধারণ করতে। সেই …